সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

জেনে রাখুন কানাডার ভিসা পেতে করণীয়

প্রদত্ত লিংকগুলিতে প্রবেশ করে প্রতিটি বিষয় ধৈর্যসহ মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। প্রতিটি ধাপ আস্তে আস্তে অতিক্রম করবেন। নিয়মগুলো ভালভাবে বোঝার চেষ্টা করবেন। অন্যথায় ভুল হতে পারে।

প্রতিবছর ৩৫ মিলিয়নের অধিক লোক কানাডা ভ্রমণ করতে যায়। মূলত কানাডা প্রদত্ত বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধাসহ পরিবার পরিজন ও বন্ধ-বান্ধবদের সাথে দেখা করতে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোক সেখানে গমন করে।

সাধারণত পর্যটক, সন্তান অথবা নাতী-নাতনীর সাথে দেখা করা, ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য, অবস্থানের সময়সীমা বৃদ্ধি, কানাডার মধ্য দিয়ে ভ্রমণ (ট্রানজিট ভিসা, এজন্য ফি লাগে না) ইত্যাদি কারণে অনেকেই কানাডা গিয়ে থাকেন। তবে উদ্দেশ্য যাই হোক, এজন্য লাগবে ভিসা।

এখন জানব কানাডার ভিসা প্রাপ্তির উপায়:

প্রথম ধাপ: ১১ ডিসেম্বর, ২০১৩ সালের পর ১৪ থেকে ৭৯ বছর বয়সী বাংলাদেশী নাগরিকদের ভিসা আবেদনের জন্য ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে হয়।

দ্বিতীয় ধাপ: ভিসা আবেদন কোন কোন বিষয়ে করা যাবে সে সম্পর্কে জানতে লিংকটিতে যান: http://www.canadainternational.gc.ca/singapore-singapour/visa.aspx?lang=eng&menu_id=4

তৃতীয় ধাপ: এখন http://www.cic.gc.ca/english/information/applications/index.asp লিংকটিতে গিয়ে যে বিষয়ে ভিসার আবেদন করবেন সেই ফরমটি বেছে নিবেন। ফরমটিতে প্রয়োজনীয় তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করে পূরণ করবেন। পূরণকৃত ফরমটি প্রিন্ট করবেন।

লক্ষণীয়:

  • আপনার আবেদন ফরমটির শেষ পৃষ্ঠায় বারকোড আছে কিনা নিশ্চিত হয়ে নিবেন। বারকোডযুক্ত পেইজটি সকল ফরমের উপরে যুক্ত করবেন। বারকোড পরিষ্কার রাখবেন, বিকৃত, অস্পষ্ট ও নোংরা করবেন না।
  • ফরমটি ভাল মানের কাগজে প্রিন্ট করবেন। সম্ভব হলে লেজার প্রিন্টারে প্রিন্ট করবেন।
  • সিটিজেনশিপ এন্ড ইমিগ্রেশন কানাডা (CIC) এ যে সকল কাগজপত্র চায় সেগুলো দিতে না পারলে ওয়েভার ফরম বা মওকুফের ফরম পূরণ করে সাইন করবেন। ওয়েভার ফরম পেতে ক্লিক করুন: http://www.vfsglobal.ca/canada/bangladesh/pdf/Waiver_Form_291015.pdf

চতুর্থ ধাপ: গোপণীয়তা নীতি জানতে ও VFS consent form পেতে ক্লিক করুন: http://www.vfsglobal.ca/canada/bangladesh/pdf/vfs_consent_form.pdf

  • এই ফরমটি পূরণ করে অবশ্যই আবেদনপত্রের সাথে যুক্ত করবেন। অন্যথায় আপনার আবেদনপত্রটি গৃহিত হবে না!

পঞ্চম ধাপ: ভিসা ফি ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট ফি (Biometric fee) প্রদান করতে লিংকটিতে ক্লিক করুন: http://www.cic.gc.ca/english/information/fees/index.asp

  • ফি প্রদানের রসিদ অবশ্যই প্রিন্ট করে আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করবেন।

ষষ্ঠ ধাপ: এখন পাসপোর্ট, ছবি, আবেদনপত্র, প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসহ নিকটস্থ Canada Visa application centre (CVAC) in Bangladesh যাবেন। সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। সার্ভিস চার্জ সংক্রান্ত বিস্তারিত দেখুন: http://www.vfsglobal.ca/canada/bangladesh/Service_and_Service_Charge.html

সপ্তম ধাপ: আবেদনপত্র প্রদান করে রসিদ নিবেন। রসিদে ট্রাকিং নম্বর থাকবে। নম্বরটি অনলাইনে আবেদনপত্রের অবস্থা জানার জন্য লাগবে।

আবেদনপত্র জমাদানের পর তার অবস্থা জানতে ভিজিট করুন: http://www.vfsglobal.ca/canada/bangladesh/track_your_application.html. ট্রাকিং নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে প্রবেশ করতে হবে।

প্রদত্ত লিংকগুলিতে প্রবেশ করে প্রতিটি বিষয় ধৈর্যসহ মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। প্রতিটি ধাপ আস্তে আস্তে অতিক্রম করবেন। নিয়মগুলো ভালভাবে বোঝার চেষ্টা করবেন। অন্যথায় ভুল হতে পারে। আর ভুল হলে আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্যতা হারাতে পারে।

বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন: http://www.vfsglobal.ca/canada/bangladesh/prepare_your_application.html


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।