সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

images.jpg

পরিযায়ী পাখিদের কথা

পাখিরা বাঁচলে বাঁচবে প্রকৃতি। সেটা আমাদের দেশের পাখিিই হোক কিংবা অন্যদেশের।


পরিযায়ী পাখিদের কথা আমরা সবাই জানি। শীত যখন তীব্র হয় তখন  অপেক্ষাকৃত কম শীত এবং পর্যাপ্ত খাবারের সংস্থান আছে এমন জায়গায় এরা দল বেঁধে পাড়ি জমায়। প্রতি বছরই শীতকালে বাংলাদেশে আগমন ঘটে হাজার হাজার অতিথি পাখির।

 ঠিক অভিবাসীদের মত হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে বাংলাদেশে আসে ওরা। ওরা আসে সুদূর সাইবেরিয়া, মঙ্গোলিয়া, ভারত, নেপাল, জিনজিয়াং সহ ইত্যাদি দেশ থেকে।
 
প্রতিবছরের ন্যায় এবারও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আসতে শুরু করেছে শীতের অতিথিরা। 

শীত কালে বাংলাদেশে আগমন ঘটে ২৪৪ প্রজাতির অতিথি পাখির। দেখতে এরা যেমন সুন্দর নামও সব বিচিত্র। যেমন, সরালি, খঞ্জনা, পাতারিহাঁস, পাতিতারা, নোনাজোৎসা, গয়ার, ধুপানি, লালমুড়ি,বামুনিয়া হাঁস, সিন্ধ ঈগল, বাড়িঘোরা আরও কত কি!

জাতি হিসেবে অতিথিপরায়নতার একটা সুখ্যাতি আমাদের থাকলেও সামান্য লোভকে সংবরণ করতে না পেরে আর সৌন্দর্য বোধের অভাবে অতিথি পাখিদের সাথে ঠিক অতিথি সূলভ আচরণ করতে এখনো শিখতে পারিনি আমরা।

তাই শীতের হাত থেকে জীবন বাঁচাতে আমাদের দেশে এসে নতুন বিপদের মুখোমুখি হয় ওরা। লোভী পাখি শিকারীরা সামান্য কিছু টাকার লোভে প্রতিনিয়ত হত্যা করে ওদের।

আসলে সরকারের উচিত এদের রক্ষায় আইনী পদক্ষেপ গ্রহন করার পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ব্যাপক প্রচারণামূলক কার্যক্রম হাতে নেয়া। কারণ অতিথি পাখি হত্যা করার মানে হচ্ছে সমগ্র বিশ্ব পরিবেশের ভারসাম্যকে আঘাত করা। শুধু সরকার নয় নাগরিক হিসেবে আমাদেরও দায়িত্ব আছে। মিডিয়া এ ব্যাপারে সবচে জোরালো ভূমিকা রাখতে পারে।
   
একটি কথা স্মরণ রাখা দরকার, অতিথিদের সাথে ভাল আচরণ করা সুসভ্য জাতির অন্যতম একটি বৈশিষ্ট।

 তাই নিজেদেরকে সুসভ্য জাতি হিসেবে প্রমান করার জন্য আমাদের উচিত অতিথি পাখিদের সাথে অতিথি সূলভ আচরণ করা।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।