সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

আচার সংরণে যত্নচার

আচার জ্যাম, জেলি, চাটনি ইত্যাদিতে অনেকসময় ছাতা পড়ে যায়। ঠান্ডা স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় রাখলে ছাতা পড়ার ঝুঁকি থাকে। বৈয়ামে আচার ফুলে ওঠা, ছাতা পড়া, রক্ত বদলে যাওয়া- এরকম হলে আাচর দূষিত হওয়ার লণ বলেই মনে করতে হবে।

ফয়জুন্নেসা মণি
আচারের কথা মনে করলে জিভে পানি এসে যায়। আমরা সবাই কম-বেশি আচার খেতে ভালোবাসি, তেমনি তৈরি করতেও ভালোবাসি। সে লোভনীয় আচার যদি বানিয়ে নষ্ট হয়ে যায় তাহলে তো দুঃখের শেষ থাকে না। এবার আমরা জেনে নিই আচার সংরণের কিছু নিয়ম-কানুন। যারা আচার ভালোবাসেন তারা উপকৃত হবেন।

- আচার সংরণের প্রথম প্রস্তুতি পরিষ্কার বৈয়াম যোগাড় করা। যেকোনো বৈয়ামে আচার সংরণ করা যায় না। সংরণের জন্য বৈয়ামের মুখ ভাঙা থাকলে, ঢাকনা ঠিকমতো না লাগলে সে বৈয়ামে আচার সংরণ করা যায় না।
- সংরণের কাজে যেমন- ছুরি, চামচ, চালনি, ছাকনি, গামলা, হাঁড়ি, কড়াই, ডালা, ট্রে ইত্যাদি ব্যবহৃত হয় এগুলো সাবান, সোডা, গরম পানিতে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে।
- বৈয়ামগুলো সপ্তায় একদিন পরীা করবেন, বৈয়ামের মুখ ভালোমতো বন্ধ না হলে ভেতরে জীবাণু প্রবেশ করে পচনক্রিয়া শুরু হয়। এমনকি বৈয়াম ফেটে যাওয়ার ভয় থাকে।
- সংরণের জন্য বৈয়াম ঢাকনা পরিষ্কার করে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে।
- আচার তৈরি করে ফেলে রাখবেন না। মাঝে মাঝে রোদে দেবেন।
- চিনি, গুড়, লবণ, সিরকা, তেল ও মশলাকে সংরণের উপাদান বলে। মসলা মেশানোর ফলে জীবাণু সক্রিয় হতে পারে না। ফলে সংরতি আচার অনেকদিন ভালো থাকে।


সতর্কতা :
- সংরণকারীর ব্যক্তিগত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাও পরিষ্কার জায়গায় সংরণের বিষয়টি অত্যন্ত মূল্যবান মনে করে অনুসরণ করা উচিত।
- নোংরা হাত বা আঙুল দিয়ে আচার ুঁলে আচার নষ্ট হয়ে যায়।
- গ্রামাঞ্চলে বাড়িতে কাসুন্দি আচার তৈরি করার সময় ছোঁয়াছুঁয়ির নিয়ম মেনে চলার একমাত্র কারণ অণজীবের প্রবেশে বাধা দেয়া।
- আচার জ্যাম, জেলি, চাটনি ইত্যাদিতে অনেকসময় ছাতা পড়ে যায়। ঠান্ডা স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় রাখলে ছাতা পড়ার ঝুঁকি থাকে।
- বৈয়ামে আচার ফুলে ওঠা, ছাতা পড়া, রক্ত বদলে যাওয়াÑ এরকম হলে আাচর দূষিত হওয়ার লণ বলেই মনে করতে হবে।
- বৈয়ামের মুখ ঠিকঠাক মতো বন্ধ না করলে আচার পচে দুর্গন্ধ হয়।
- আচারে সিরকা মিশিয়ে রাখবেন। এতে আচার দীর্ঘদিন সংরণ করা যায়। এ নিয়মগুলো মেনে চলে দেখুন বছরের পর বছর আচার নষ্ট হবে না।
- আচার তুলতে ভেজা চামচ ব্যবহার করলে আচান নষ্ট হয়ে যায়, স্যাঁতস্যাঁতে ঘরে রাখলে ড্যাম্প ধরে আচার নষ্ট হয়ে যায়।
- এঁটে হাতে আাচরে ছোঁয়াবেন না। ভেজা চামচ দিয়ে আচার তুলবেন না।
- আচার সংরণের সময় সতর্ক না হলে আচারে অণূজীব জন্মে, আচার গেজে উঠে, নষ্ট হয়ে যায়।



এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।