সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

guinea-pig-babys-519a010d4517d.jpg

বিশ্ব ল্যাবরেটরি প্রাণি দিবস প্রতিবছর ১০০ মিলিয়ন প্রাণি ভোগান্তি ও হত্যার শিকার!

১৯৭৯ সালে National Anti-Vivisection Society (NAVS) কর্তৃক প্রথম দিবসটি উদযাপিত হয়। আজ ব্রিটিশ এয়ারচিফ মার্শাল হিউজ ডোডিং এর জন্মদিন। যিনি ছিলেন জীবন্ত প্রাণি ব্যবচ্ছেদের ঘোরতর বিরোধী।

আজ ২৪ এপ্রিল। জাতিসংঘ স্বীকৃত বিশ্ব ল্যাবরেটরি প্রাণি দিবস। সারাবিশ্বের ল্যাবরেটরিতে লক্ষ লক্ষ প্রাণির ভোগান্তি ও হত্যার শিকার হওয়াকে স্মরণে রেখে দিবসটি উদযাপিত হয়।

প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ প্রাণিকে অসৎ বৈজ্ঞানিক গবেষণায় জীবন্ত প্রাণির অঙ্গ ব্যবচ্ছেদ (Vivisection) করা হয়! বিষয়টি একদিকে যেমন ভয়াবহ অন্যদিকে প্রাণিটিকে তিলে তিলে কষ্ট দিয়েও হত্যা করা হয়!

১৯৭৯ সালে National Anti-Vivisection Society (NAVS) কর্তৃক প্রথম দিবসটি উদযাপিত হয়। আজ ব্রিটিশ এয়ারচিফ মার্শাল হিউজ ডোডিং এর জন্মদিন। যিনি ছিলেন জীবন্ত প্রাণি ব্যবচ্ছেদের ঘোরতর বিরোধী। তাই তাঁর জন্মদিনই দিবসটি উদযাপনের জন্য স্বীকৃত হয়।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর তিনি NAVS এর সভাপতি এবং তাঁর স্ত্রী মুরিয়েল এর সদস্য হন। NAVS এর পরিসংখ্যানে জানা যায়, প্রতিবছর প্রায় ১০০ মিলিয়ন প্রাণি ল্যাবরেটরিতে ভোগান্তি ও হত্যার শিকার হয়। অথচ প্রাণির উপর পরীক্ষা চালানোর অনেক বিকল্প ও উন্নত পদ্ধতি রয়েছে।

প্রাণির উপর নিষ্ঠুর পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং প্রাণি ছাড়া উন্নত বিকল্প গবেষণা পদ্ধতি সম্পর্কে সচেতনতা জন্মানোই দিবসটির মূল উদ্দেশ্য। এই সপ্তাহ World Week for Animals in Laboratories, Lab Animal Week or World Laboratory Animal Liberation Week হিসেবেও স্বীকৃত।

ল্যাবরেটরিতে প্রাণি ব্যবহার সংক্রান্ত আইনের যথাযথ প্রয়োগ, সঠিক কারণ ছাড়া ব্যবহার রহিতকরণ, সীমিত মাত্রায় ব্যবহার নিশ্চিতকরণের (যেহেতু প্রাণির বিকল্প এখনও পর্যাপ্ত নয়) জন্য বিভিন্ন প্রাণি অধিকার সংক্রান্ত সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে।

ল্যাবরেটরিতে প্রাণি ব্যবহারের প্রধান কারণ:

  • মানুষ ও প্রাণির জন্য ঔষধ, টিকা ইত্যাদি তৈরি ও পরীক্ষাকরণ।
  • প্রাণি, পরিবেশ ও মানুষের শরীরের জন্য কোন কেমিকেল যেমন কীটনাশক কতটুকু নিরাপদ বা ক্ষতিকর জানার জন্য।

সাধারণত ইঁদুর, গিনিপিগ, বানর ইত্যাদি ছোট মেরুদণ্ডী প্রাণি গবেষণাগারে বহুল ব্যবহৃত হয়। আপনার আমার জীবন রক্ষাকারী এক একটা ঔষধের জন্য কত শত প্রাণির জীবন যাচ্ছে! তবুও কি প্রাণিদের অবহেলা করবেন? গালির ভাষায় প্রাণির নাম ব্যবহার করবেন?

সূত্র: ভেগিস ইউ.কে, আরএসপিসিএ।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।